এক হাজার সাংবাদিককে মোবাইল জার্নালিজমের প্রশিক্ষণ দিলো সিসিএবি

newsup
  • আপডেট টাইম : December 22 2021, 05:13
  • 513 বার পঠিত
এক হাজার সাংবাদিককে মোবাইল জার্নালিজমের প্রশিক্ষণ দিলো সিসিএবি

নিউজ ডেস্কঃ ফেসবুক, বিগস্প্রিং, সিআইআর-এর সঙ্গে মোবাইলভিত্তিক প্রশিক্ষণ কর্মসূচির মাধ্যমে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন বাংলাদেশের জাতীয় পত্রিকা, অনলাইন ও টেলিভিশনের প্রায় ১ হাজার ২৫ জন সাংবাদিক। সেন্টার ফর কমিউনিকেশন অ্যাকশন বাংলাদেশ (সিসিএবি) সাংবাদিকদের এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করে।

‘ফেসবুক ফান্ডামেন্টালস্‌ ফর নিউজ’ শীর্ষক এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচির অংশীদার হিসেবে ছিল কলম্বোভিত্তিক ‘সেন্টার ফর ইনভেস্টিগেটিভ রিপোর্টিং’ (সিআইআর)। মোবাইল ভিত্তিক এ প্রশিক্ষণ ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষায় দেওয়া হয়। অনলাইন নিরাপত্তা, ফেসবুকে স্টোরিটেলিং এবং সংবাদ সংগ্রহের বিষয়ে ধারণা দেওয়াই ছিল এ কোর্সের লক্ষ্য।  গত আগস্টে শুরু হওয়া প্রশিক্ষণ কর্মসূচিটি শেষ হয় ২১ ডিসেম্বর।

কোর্সের বিষয়ে নাগরিক টিভির প্রধান প্রতিবেদন শাহানাজ পারভীন বলেন, ‘ অনলাইনে আরও কি করে ভালভাবে সংবাদ সংগ্রহ ও পরিবেশন করা যায় এবং নিজেরা নিরাপদ থাকা যায় এই কোর্সের মাধ্যমে তাই আমরা শিখলাম। হ্যাকিং ও হ্যারাসমেন্ট থেকে বাঁচা সাংবাদিকদের জন্য খুবই জরুরি এবং বিশেষ করে নারী সাংবাদিকদের জন্য এটা আরও বিশেষ প্রয়োজন।’

কোর্সটি সাংবাদিকদের জন্য খুবই উপকারী বলে মন্তব্য করে সময় টিভির স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ওমর ফুক বলেন, ‘আমরা তো টেলিভিশন, রেডিও কিংবা পত্রিকায় কাজ করি। ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের জন্য যে আলাদা কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হয় যার মাধ্যমে সহজে মানুষের কাছে পৌঁছানো যায় সে বিষয়গুলো সহজে বোঝা গেছে এ কোর্সের মাধ্যমে। কোর্সটা খুব যে কঠিন তা নয়, যে কেউ মনোযোগ দিয়ে করলেই খুব সহজেই করতে পারেবন। এটা খুবই উপকারী ও দরকারি একটা কোর্স।’ ‘ফেসবুক ফান্ডামেন্টালস্‌ ফর নিউজ’ কোর্সের মাধ্যমে নতুন কিছু জানতে পেরেছি।

দৈনিক সমকাল পত্রিকার যুগ্ম বার্তা সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রঞ্জু। তিনি বলেন, ‘আমরা অনেক কিছুই জানি বা পারি। তবে সেটার ধারাবাহিকতা নেই। এ কোর্সেটি আমাদেরকে ধারাবাহিকভাবে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের সেই বিষয়গুলো জানতে সহায়তা করেছে।’

দৈনিক সময়ের আলো পত্রিকার ডেপুটি নিউজ এডিটর বাঁধন অধিকারী বলেন, ‘ফেসবুক জার্নালিজম প্রজেক্টের আওতায় বাংলাদেশের যে সাংবাদিকরা প্রশিক্ষণ নিয়েছেন, আমিও তাদের একজন। এই প্রশিক্ষণ আমাকে ফেসবুকে ব্যক্তিগত গোপনীয়তা নিশ্চিত করা ও ভিডিও স্টোরি টেলিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে সহায়তা করেছে। আয়োজকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।’

সেন্টার ফর কমিউনিকেশন অ্যাকশন বাংলাদেশের (সিসিএবি) নির্বাহী পরিচালক জেইন মাহমুদের বলেন, এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচির মাধ্যমে আমরা দেশের আনাচে কানাচে সাংবাদিক ভাই বোনেদের কাছে পৌঁছাতে পেরেছি। যেটা একটা বড় অর্জন। সামাজিক মাধ্যমে স্টোরি টেলিং ও নিরাপত্তা দুটোই এই মুহূর্তে জরুরী বিষয়।

উল্লেখ্য, মোবাইল ভিত্তিক প্রশিক্ষণটি করানো হয় ‘বিগস্প্রিং’ অ্যাপের মাধ্যমে। সংবাদকর্মী, ফ্রিল্যান্সার, কনটেন্ট রাইটার, গবেষক, সাংবাদিকতা শিক্ষার্থীসহ চার হাজারের বেশি মানুষ রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন। এর থেকে যাচাই-বাছাই শেষ ১৭৯১ জন মনোনীত হন। এর মধ্যে কোর্সটি সম্পন্ন করেছেন ১০২৫ জন।

প্রসঙ্গত, টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সেন্টার ফর কমিউনিকেশন অ্যাকশন বাংলাদেশ (https://www.c-cab.org) গণমাধ্যম ও কৌশলগত যোগাযোগ টুলস (সরঞ্জাম) ব্যবহার করে সময়োপযোগী, নির্ভুল এবং কার্যকরী তথ্যের প্রবাহ নিশ্চিত করে। সাংবাদিক ও ডিজিটাল যোগাযোগ বিশেষজ্ঞদের নেতৃত্বে সিসিএবি সংবাদের ইকোসিস্টেমের সরবরাহ ও চাহিদা উভয় দিক নিশ্চিত করতে কাজ করে। তরুণদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মোবাইল সাংবাদিকতায় সক্ষমতা বাড়ানো থেকে শুরু করে সংঘাত-সংবেদনশীল সাংবাদিকতা এবং তথ্যভিত্তিক সাংবাদিকতা সব বিষয়ে জানানোর কাজ করছে।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর